নাটোরে সিংড়ায় হিন্দু বৌদির ঘর থেকে আপত্তিকর অবস্থা মুসলিম যুবক আটক

অপরাধ

সুমাইয়া খাতুন :
নাটোরের সিংড়ায় ইটালী ইউনিয়নে হিন্দু বৌদির ঘর থেকে ইউনুস আলী নামের একজন মুসলিম যুবককে আপত্তিকর অবস্থায় আটক করেছে স্থানীয়রা।

সোমবার (২০ জুন) দিবাগত রাতে উপজেলার ইটালী ইউনিয়নের বাশবাড়িয়া গ্রামের গোপাল এর বাড়িতে এঘটনা ঘটেছে।

জানা যায়, বাশবাড়িয়া গ্রামের গোপাল এর স্ত্রী শ্রীমতী মাধবী রানী নামের বৌদি সে দীর্ঘ দিন ধরে নাটোর জেলার বড়াইগ্রাম উপজেলার জুনাইল এলাকার তয়জাল ইসলাম এর ছেলে ইউনুস আলী র সাথে মোবাইল এ অবৈধ প্রেম করে আসতেছে।আটককৃত যুবক নাটোর জনসেবা হাসপাতালের ডাঃ আমিনুল ইসলাম এর নিজ বাড়ি সিংড়া উপজেলার ইটালী ইউনিয়নের বাশবাড়িয়া গ্রামে ধান কাটার কাজ করাকালীন সময় থেকে হিন্দু বৌদি মাধবী রানী স্বামী মৃত গোপাল এর স্ত্রীর সাথে পরিচিত। তাহারা মোবাইল এ যোযোগাযোগ করে দুজনের ইচ্ছেমতো এমন ঘটনা ঘটেছে।

স্থানীয় জনগণ বাহিরে থেকে তাদের অবৈধ মেলামেশা দেখায় গভীর রাতে আপত্তিকর অবস্থায় দুইজন কে হাতেনাতে আটক করে।পরে ইউনুস আলী নামে মুসলিম যুবক কে বারান্দার এক খুঁটির সাথে বেধে তাহাকে জিজ্ঞেস করলে স্থানীয়দের কাছে অবৈধ মেলামেশার কথা স্বিকার করে।পরে মঙ্গলবার সকাল আনুমানিক ০৯.৩০ মিনিটের দিকে আটককৃত যুবকের অভিভাবকদের সাথে বাশবাড়িয়া গ্রামের বিচারকেরা কথাবার্তা বলে তার অভিভাবকদের হাতে তুলে দেয়।এনিয়ে গ্রামবাসী ও এলাকাবাসীর মধ্যে সমালোচনার ঝড় বহিতেছে।

জানা জায়,বাশবাড়িয়া গ্রামের কুরবান আলী মেম্বার, সাইফুল সবুজ, আনোয়ার হোসেন আরোন সহ আরো অনেকের নেতৃত্বে আটককৃত যুবকের কাছ থেকে আশি হাজার টাকা চাইলে দিতে না পারায় তার অভিভাবকদের সকালে ডাকে, পরে এলাকাবাসীর ধারণা লক্ষাধিক টাকার বিনিময়ে ছেলেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

ইটালী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আরিফুল ইসলাম আরিফ বলেন, বিষয় টি আমার জানা ছিল না দ্রুত এবিষয়ে খোঁজ নেওয়া হচ্ছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।