ফেসবুক ও ইউটিউবে মাসে ৩ লাখ টাকা আয় করেন ” হিরো আলম “

বিনোদন

বিশেষ প্রতিবেদক :
বগুড়ার যুবক আশরাফুল আলম। সবার কাছে তিনি হিরো আলম। অভিনয়, প্রযোজনা, গান নিয়ে নিয়মিত তিনি কাজ করে যাচ্ছেন। তার কাজগুলো প্রকাশ হলেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। শুরু হয় তুমুল আলোচনা ও বিতর্ক। অন্যরা তাকে নিয়ে সমালোচনায় মেতে থাকলেও নিজের কোনো ক্ষতি নেই বলে জানান হিরো আলম। তিনি এসব আলোচনা ও সমালোচনা দিয়ে আয় করছেন ঠিকই।

তিনি বলেন, ফেসবুকে আমার ফলোয়ার ১৯ লাখ। ইউটিউব চ্যানেল “হিরো আলম”- এ অফিসিয়াল সাবস্ক্রাইবার ১৩ লাখেরও বেশি। এই দুই মাধ্যম থেকেই আয় হয় আমার। কোনো মাসে দেড় লাখ, কোনো মাসে ৩ লাখ। আবার কোনো কোনো মাসে ৫০ হাজার টাকা। তাছাড়া আমি শো করে ভালো অংকের অর্থ পাই।

হিরো আলম বলেন, এই টাকাগুলোর বড় একটা অংশ আমি মানুষের সেবায় ব্যয় করি। মানুষকে সেবা করতে আমার ভালো লাগে। সবসময় মনে হয় দুদিনের দুনিয়া এতো টাকা দিয়ে আমি কি করবো। জীবনে অনেক কষ্ট করেছি। তাই মানুষের কষ্ট দূর করতে ভালো লাগে।

কেউ কোনো সমস্যায় পড়লে আমার কাছে আসে। যে বিশ্বাস নিয়ে তারা আসেন সেটা আমাকে তাদের পাশে থাকতে প্রেরণা দেয়। সাধারণ মানুষের পাশে কেউ থাকে না। তাই আমি তাদের পাশে আছে সব সময় থাকি। প্রচার চাই না। মানুষের ভালো হোক সেটাই আমার কামনা।

বর্তমানে হিরো আলম অভিনীত ও প্রযোজিত টোকাই , বউ জামাইয়ের লড়াই ও নষ্ট হওয়ার কষ্ট সিনেমা মুক্তির অপেক্ষায়। নতুন করে একটা ওটিটি প্ল্যাটফর্ম নিয়ে আসছেন তিনি। যার ঘোষণা কয়েক দিন আগে দিয়েছেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।